পোস্টগুলি

নভেম্বর, ২০১৯ থেকে পোস্টগুলি দেখানো হচ্ছে

মিম পুরাণ

ছবি
  অনেক আগে সুকুমার রায় বলে একজন সাহিত্যিক (আশা করি তোমাদের অচেনা নয় 😁 ) তার কবিতায় বলেছিলেন “গোঁফের আমি গোঁফের তুমি, তাই দিয়ে যায় চেনা” । তবে এখনকার সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারকারী তরুণ তরুণীরা কিশোর কিশোরীরা বলবে , “মিমের আমি মিমের তুমি, তাই দিয়ে যায় চেনা”। ইন্টারনেট পাড়ার মোড়ে মোড়ে এখন মিমেরই ছড়াছড়ি , মনে হবে যেন কোন এক উন্মাদ শিল্পী নিজের শিল্পকলার প্রদর্শন করছে! আর একজন ইন্টারনেট পাড়ার বাসিন্দার (যেমন আমি , তুমি) বাড়ির দেওয়ালে আঁকা মিম দেখে তার চিন্তাধারা , মানসিকতা এবং রুচিবোধ সম্বন্ধে বিস্তর ধারনা পাওয়া যায়। তোমরা যদি স্থায়ী বাসিন্দা নাও হও কিন্তু যদি এই কয়েকবছরের মধ্যে একবারের জন্যেও আমাদের এই ইন্টারনেট পাড়ায় এসেছ তাহলে, ৯৯.৯৯ শতাংশ সম্ভাবনা আছে যে তুমি একবার না একবার মিমের সম্মুখীন হয়েছ। মিম সম্বন্ধে সবারই কম বেশি এক-আধটু ধারনা আছে , কিন্তু মিমের ইতিহাস সম্বন্ধে সবাই জানো কি? বেশিরভাগই উত্তর দেবে “না!” , তাহলে আর কথা না বাড়িয়ে চল শুনেনি “মিম পুরাণ”!! সালটা ১৯৭৬, একজন ব্রিটিশ জীববিজ্ঞানী ও লেখক, ক্লিনটন রিচার্ড ডকিন্স , তাঁর বই “দি সেলফিস জিন” এ কিভাবে সাংস্কৃতিক তথ্

কোয়ালা!

ছবি
  সেদিন ইন্টারনেট পাড়ায় ঘুরতে ঘুরতে একটা খবর দেখতে পেলাম, পোর্ট ম্যাকওয়ারির কাছে লাগামহীন দাবানলে শত শত কোয়ালার জীবন্ত দহনের আশঙ্কা করা হচ্ছে । খবর শুনে দুঃখ পেলাম, প্রিন্স ইএ -এর একটা ভিডিওর লাইন মনে পড়ে গেল, …পরবর্তী প্রজন্ম আমাদের ক্ষমা করো পশুপাখিদের আমরা বিলুপ্তির খাদে ঠেলে দিয়ে তোমাদের তাদের সাথে বন্ধু হওয়ার সুযোগটুকুও কেড়ে নিয়েছি… । কোয়ালা, অনেকে বলে কোয়ালা ভালুক , যেটা আসলে ঠিক নয় কোয়ালার সাথে ভালুকের দূর দুরান্ত পর্যন্ত কোনো সম্পর্ক নেই। (ছবিসুত্র) কোয়ালা সাধারণত অস্ট্রেলিয়ার ইউক্যালিপটাস বনভূমিতে বাস করে তবে রেড লিস্টে এই প্রজাতিকে সংকটাপন্ন প্রাণীর তকমা দেওয়ার পর থেকে বিভিন্ন নতুন জায়গাতে (কয়েকটি দ্বীপে) এদের বাস করার ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়েছে। কোয়ালার বাসস্থান বর্তমানে [লাল রং চিহ্নিত স্থানে কোয়ালার স্বাভাবিক বাসস্থান, বেগুনি রং চিহ্নিত এলাকায় বর্তমানে নতুন আবাস তৈরি করা হয়েছে (সূত্র) ] কোনোদিন যদি অস্ট্রেলিয়া যাও তাহলে কোয়ালা চিনতে খুব একটা অসুবিধা হবে না, দেখবে গাছের ডাল ধরে ঝুলে আছে আছে বাচ্চাদের টেডি বিয়ারের মত একটা প্রাণী! লেজবিহীন শরীরের রং ধূসর বা চকলেট বাদা